logo
শনিবার, ২০ জানুয়ারি ২০১৮
 

তাসকিন-পিয়ার কথোপকথন

তাসকিন-পিয়ার কথোপকথন

ঢাকা, ২২ ডিসেম্বর, এবিনিউজ : গত ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার ঢাকার Lakeshore Hotel-এ Apex Brand এর নতুন ব্র্যান্ড এপেক্স ফ্লাই এর Dealers Night এর আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন এপেক্স ফ্লাই এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর জনপ্রিয় মডেল, অভিনেত্রী ও উপস্থাপক জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া এবং এ সময়ের জনপ্রিয় ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ।

অনুষ্ঠানের ফাঁকে কথা হয়েছিল তাদের দু’জনের সাথে। তাদের বর্তমান–ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা এবং এপেক্স ফ্লাই এ তাদের কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে তাসকিন ও পিয়ার সাথে বিস্তারিত কথোপকথন নিচে তুলে ধরা হল-

ফ্লাই এর ব্র্যান্ড এ্যাম্বাসেডর হিসেবে যুক্ত হয়ে কেমন অনুভব করছেন?

তাসকিন: ভালো লাগছে। আমাদের দেশের one of the best brand এপেক্স।

পিয়া: আমাদের দেশীয় এমন একটি ব্র্যান্ড এর প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে অনেক বেশি ভালো লাগছে, যার বিশ্বব্যাপী গুণগত মান রয়েছে। আমি আশাকরি, দেশীয় পণ্য ব্যবহার করে আমরা সকলেই উপকৃত হব।

ঢাকা শহরের ট্রাফিক জ্যামে বসে না থেকে ফ্লাই ব্র্যান্ডের জুতা পায়ে দিয়ে উড়ে যেতে পারলে কেমন হতো?

তাসকিন:
হাহাহা! অবশ্যই ভালো হতো কিন্তু সেটা তো সম্ভব হবে না। তবে, বাস্তবজীবনে ফ্লাই পরে কমফোর্টেবলফিল করবে এটা শিওর।

পিয়া: ঢাকায় তো অনেক জ্যাম, উড়তে পারলে ভালোই হবে। তবে জ্যামে গাড়িতে বসে এই জুতা পড়ে রিলাক্স করা যাবে। আর চাইলে কেউ ঢাকার জ্যামে বসে ফ্লাই এর জুতা পরে উড়ে বেরানোর কল্পনাও করে নিতে পারে কিন্তু।

এপেক্সের পর নতুন কোন বিজ্ঞাপনের প্রস্তাব পাচ্ছেন?

তাসকিন:
পিয়া তোমডেল, ওর কাজ তো অনেক বেশি সেই তুলনায় ক্রিকেট আমার প্রথম প্রায়োরিটি। এপেক্স ছাড়াও আরও কিছু চুক্তি হয়েছে। SMC, YAMAHA, ATOM, Raw Nation এর কিছু কাজ হাতে আছে। Minister এর সাথে চুক্তি রিসেন্টলি শেষ হয়ে এখন OPPO’র ব্র্যান্ড এ্যাম্বাসেডর হিসেবে আছি।

পিয়া: ভবিষ্যতে তাসকিনের সাথে হয়তো আরও কাজ করা হবে ব্যাটে বলে মিলে গেলে। এখন অবশ্য Uniliver এর TRESemme, আড়ং, প্রাণের সাথে কাজ করছি। তবে হ্যাঁ, ভবিষ্যতে ভালো মানের কাজ পেলে আরো কাজ করার ইচ্ছে আছে।

ফ্লাই এর বিজ্ঞাপনে অংশগ্রহণের সময় মজার কোন অভিজ্ঞতার কথা কি পাঠকদের কে জানাবেন?

তাসকিন: এই প্রথম TVC’তে অনেকক্ষণ উড়তে হয়েছে। আমি খুব camera shy, পিয়ার সাথে কাজ করার সময় খুবই লজ্জা পেয়েছিলাম। এমনিতে কোন প্রবলেম হয় না কিন্তু ক্যামেরার সামনে গেলে আর shoot এর সময় লোকজনের সামনে গেলেই লজ্জা পাই। সাউথ আফ্রিকা সফরে যাওয়ার ২ দিন আগে shoot টা হয়েছিল। তাই একদিনের মধ্যেই shoot টা শেষ করাটা চ্যালেঞ্জিং ছিল।

পিয়া: হাহাহা! shooting-এর সময় তাসকিন খুবই লজ্জা পাচ্ছিলো। একটি দৃশ্য এমন ছিল, যেখানে আমরা উপর থেকে উড়ে এসে সিনেমা হলের সামনে এসে নেমে একজন আরেক জনের দিকে তাকাতে হয়েছে। যখনই নিচে নেমে এসে তাকাতে হয়, তখনই তাসকিন লজ্জা পায়। এমনিতে তাসকিন খুবই supportive but camera start হলেই ও লজ্জা পাওয়া শুরু করে।

মাঠের বাইরে (তাসকিন আহমেদ) বিজ্ঞাপনে দর্শকদের কেমন সাড়া পেয়েছেন?

তাসকিন:
দর্শকদের কাছ থেকে এখন পর্যন্ত পজিটিভ সাড়াই পাচ্ছি। অনেকেই বলে সুন্দর হয়েছে, কিউট লাগছে TVC তে। হাতের ৫ টা আঙ্গুল তো সমান না, কেউ কেউ অনেক নেতিবাচক মন্তব্য করেন। অনেকে বলে এসব না করে খেলায় মনোযোগ দিতে।

RAMP এর বাইরে (জান্নাতুল পিয়া) বিজ্ঞাপনে দর্শকদের কেমন সাড়া পেয়েছেন?

পিয়া: এখনতো ramp তেমন করা হয় না। শুরুর দিকে ৪–৫ বছর করেছি। এখন ভালো কাজ পেলেই করা হয়। আপনারা অনেকে হয়তো জানেন না আমি কিন্তু lawyer। আপাতত এটা নিয়েই ব্যস্ত আছি, মডেলিং আমার passion। তবে যা যা আমার profile-এ Value Add করবে, যেমন– ramp, BPL-উপস্থাপনা ও সিনেমা সেগুলো অবশ্যই করি এবং করবো।

আপনাদের এই সময়ের ব্যস্ততার খবর জানতে চাই?

তাসকিন: আমার ব্যস্ততা তো খেলা নিয়ে, সকাল থেকে practice আর অনেক hard-work করতে হয়, Family কে সময় দেয়া হয়ে ওঠে না তেমন, আগে special person ছিল ২ জন, বাবা এবং মা, আর এখন ৩ জন wife সহ। আমার wife এর মালদ্বীপ যাওয়ার খুব ইচ্ছে, সময় পেলে ওকে নিয়ে মালদ্বীপ ঘুরে আসবো। এমনিতে আড্ডা দিতে খুব পছন্দ করি আমি। আড্ডা না দিলে মন fresh হয় না আমার। Free time এ Taskin Teritory তে যাওয়া হয়, pool খেলা হয়, মাঝে মাঝে খুব বেশি দূরে না গিয়ে বাড়ির আশে পাশের বড় ভাই, ছোট ভাইদের সাথে আড্ডা দেয়া হয়।

পিয়া: এখন shoot নিয়ে ব্যস্ত। TVC আছে, Telefilm ও করছি, lawyer যেহেতু অফিস আছে, business আছে, সব মিলেই সময় কাটছে আমার। সামনের internationalএকটা কাজ করবো, এখনই কিছু বলবো না। আগে ব্যাটে বলে মিলুক তার পর সবাইকে জানাবো।

ক্রেতাদের উদ্দেশ্যে কি বলবেন?

তাসকিন: এপেক্স ফ্লাই খুবই আরামদায়ক, স্টাইলিস এবং প্রাত্যহিক ব্যবহারের জন্য ভালো। যারা চাকুরী করেন বা স্টুডেন্ট তাদের জন্য এপেক্স ফ্লাই খুবই ভালো। আমি বলব, একবার ব্যবহার করেই দেখেন তাহলেই বুঝবেন। ফ্লাই কিনবেন এবং অন্যদেরও কিনতে বলবেন। আমিও পরি এপেক্স ফ্লাই, আপনারাও পরুন।

পিয়া: ফ্লাই কিনুন, আর visualy উড়তে থাকুন। এপেক্স ফ্লাই খুবই কমফোর্টেবল প্রতিদিনের ব্যবহারের জন্য। শুটিং এর জন্য যখন ব্যবহার করেছি তখন আমার খুবই কমফোর্টেবল লেগেছে। আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ।

তাসকিন: আপনাকেও ধন্যবাদ।

এবিএন/ফরিদুজ্জামান/জসিম/এফডি

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত