মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫
logo
feb18  

পদত্যাগে অস্বীকৃতি : জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন মুগাবে

পদত্যাগে অস্বীকৃতি : জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন মুগাবে
ঢাকা, ২০ নভেম্বর, এবিনিউজ : জিম্বাবুয়ের গৃহবন্দি প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবের ওপরে পদত্যাগের জন্য ব্যাপক চাপের মাঝেও তিনি ক্ষমতা ছাড়তে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।
 
জাতীর উদ্দেশে টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে, পদত্যাগ করার ঘোষণা দেওয়ার বদলে উল্টো আসন্ন কংগ্রেসে নিজের জানু-পিএফ পার্টিকে নেতৃত্ব দেওয়ার আকাঙ্ক্ষার কথা জানিয়েছেন তিনি ।
 
সরাসরি প্রচারিত ভাষণে তিনি বলেন, ‘এখন থকে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে যে কংগ্রেস আছে আমি সেখানে সভাপতিত্ব করব। এটি অবশ্যই কারো দ্বারা পক্ষপাতদুষ্ট হওয়া উচিত নয়। জনগণের চোখে এর ফলাফলকে আপসের মতো করে দেখানো ঠিক হবে না।’
 
নিজের পার্টির কংগ্রেসে নেতৃত্ব দেওয়ার আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করলেও  মুগাবেকে তার পার্টি আগেই বরখাস্ত করেছে এবং পদত্যাগ করার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে অর্থাৎ আজ সোমবার দুপুর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়া হয়। পদত্যাগ না করলে, তাকে ইমপিচ বা অভিশংসনেরও হুমকি দিয়েছে দলটি। 
 
সেনারা দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর থেকেই মুগাবের ক্ষমতা দুর্বল হয়ে এসেছে। এর পরও তিনি টেলিভিশনের ভাষণে পদত্যাগ না করার ঘোষণায় দেওয়ায় মুগাবের সাবেক মিত্ররা নিন্দা জানিয়েছেন। পদত্যাগে অস্বীকৃতি : জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন মুগাবে
 
এ ঘোষণার প্রতিবাদে বিরোধীরা আবারও রাজপথে নেমে আসবে বলে তারা মনে করছেন।
 
এ মাসের শুরুর দিকে মুগাবে ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং দলীয় পদ থেকে এমারসন নানগাওয়াকে বহিষ্কার করেন। অথচ এই নানগাওয়াকে একসময় মুগাবের উত্তরসূরি বিবেচনা করা হত, তাকে বহিষ্কারের পর সে জায়গায় মুগাবের স্ত্রী গ্রেসের নাম চলে আসে।
 
এ নিয়ে দলীয় কোন্দলের মধ্যেই গত বুধবার সেনাবাহিনী জিম্বাবুয়ের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার কথা জানায় এবং মুগাবেকে গৃহবন্দি করে।
 
ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে দেশকে স্বাধীন করে এক সময় পুরো মহাদেশে উপনিবেশবিরোধী মুক্তির নায়কে পরিণত হয়েছিলেন ‘গ্র্যান্ড ওল্ড ম্যান’ মুগাবে।
 
এমনকি পাশ্চিমা দেশগুলোতেও তিনি ‘থিংকিং ম্যানস গেরিলা’ নামে পরিচিত ছিলেন। কিন্তু ১৯৯০ সালের পর জিম্বাবুয়ের অর্থনীতি ভেঙে পড়তে শুরু করে এবং দেশে তার বিরোধী মতো তৈরি হতে থাকে।
 
ওই সময় মুগাবে দমন-পীড়নের মাধ্যমে তাদের থামাতে চেষ্টা করেন, যে কারণে নায়ক মুগাবে দিন দিন জনগণের চোখে খলনায়কে পরিণত হতে থাকেন।
 
এবিএন/সাদিক/জসিম/এসএ

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত