logo
সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৭
 

ট্রাম্পের ভাষণ যেন ‘কুকুরের ঘেউ ঘেউ’

ট্রাম্পের ভাষণ যেন ‘কুকুরের ঘেউ ঘেউ’
ঢাকা, ২১ আাগস্ট, এবিনিউজ : জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম ভাষণকে ‘কুকুরের ঘেউ ঘেউ’য়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাই ইয়ং। 
 
মঙ্গলবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ট্রাম্প বলেন, ‘বাধ্য করা হলে যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়াকে পুরোপুরি গুঁড়িয়ে দেবে।’ ট্রাম্পের এই বক্তব্যকে অগ্রাহ্য করে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং হো বলেন, ‘একটা প্রবাদ প্রচলিত আছে—কুকুর ঘেউ ঘেউ করলেও কুচকাওয়াজ বন্ধ থাকে না। ট্রাম্প যদি ঘেউ ঘেউ করে আমাদের ভড়কে দেওয়ার চিন্তা করে থাকেন, তা হলে তিনি স্বপ্ন দেখছেন।’
 
উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনকে ‘রকেট ম্যান’ বলে আখ্যায়িত করেছেন ট্রাম্প। এমন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে রি ইয়ং হো বলেন, ‘আমি তার সহযোগীদের জন্য দুঃখবোধ করছি।’
 
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ভাষণে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু কর্মসূচি থেকে সরে আসতে হুঁশিয়ার করেন ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনকে ‘লৌহমানব’ হিসেবে উল্লেখ করে তার দেশকে শেষ করে দেয়ার হুমকি দেন। ট্রাম্প বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপক শক্তি ও ধৈর্য আছে। কিন্তু আমরা যদি নিজেদের বা মিত্রদের রক্ষা করতে বাধ্য হই, তাহলে উত্তর কোরিয়াকে ধ্বংস করা ছাড়া আমাদের আর কোনো উপায় থাকবে না।’
 
ট্রাম্পের ক্ষোভের লক্ষ্যবস্তু কোরীয় নেতার উদ্দেশে ট্রাম্পের আরও হুমকি, ‘রকেটম্যান নিজেকে এবং নিজের দেশকে আত্মঘাতী অভিযানের দিকে পরিচালিত করছেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত, ইচ্ছুক ও সক্ষম। তবে আশা করি এর প্রয়োজন হবে না।’
 
বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্নপ্রায় উত্তর কোরিয়া বলে আসছে, আগ্রাসী যুক্তরাষ্ট্রের হাত থেকে নিজেদের রক্ষা করতে তাদের পারমাণবিক শক্তির খুবই দরকার। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রসহ বাকি বিশ্ব উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কার্যক্রমের বিরুদ্ধে। জাতিসংঘ ও যুক্তরাষ্ট্র একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেও দেশটির লাগাম টানতে পারছেন না। উপরন্তু নিষেধাজ্ঞা যত বাড়ছে, তাদের পারমাণবিক কার্যক্রমও তত বাড়ছে।
সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া
 
এবিএন/সাদিক/জসিম/এসএ

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত