logo
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৬
 
 
প্রতি মাসে বেতন থেকে অগ্রিম কর কাটতে হবে: এনবিআর
প্রতি মাসে বেতন থেকে অগ্রিম কর কাটতে হবে: এনবিআর
ঢাকা, ০৮ আগস্ট, এবিনিউজ : সরকারি-বেসরকারি সব চাকরিজীবীর দিকে কর আদায়ে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)। করযোগ্য আয় থাকলে প্রতি মাসেই চাকরিজীবীদের অগ্রিম কর দিতে হবে। নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠানই বেতন দেওয়ার আগে এ অর্থ কেটে এনবিআরে জমা দেবে। এছাড়া সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মূল বেতন ১৬ হাজার টাকার বেশি হলেই বার্ষিক আয়কর বিবরণী জমা বাধ্যতামূলক। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা কিংবা উৎপাদনের তত্ত্বাবধান পর্যায়ে সব চাকরিজীবীর ইলেকট্রনিক কর শনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) নিতেই হবে।
 
চলতি অর্থবছরের বাজেটে চাকরিজীবীদের আয়কর বিবরণী ও কর দেওয়ার বিষয়ে যেসব নতুন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হলো প্রতি মাসে বেতন থেকে অগ্রিম কর কাটা, সরকারি কর্মকর্তাদের নির্দিষ্ট সীমার আয়ের বেশি হলে আয়কর বিবরণী জমা এবং বেসরকারি চাকরিজীবীদের ই-টিআইএন বাধ্যতামূলক। 
 
করযোগ্য আয় করেন এমন সব সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবীর বেতন থেকে প্রতি মাসেই অগ্রিম আয়কর কেটে রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বিজ্ঞাপনে। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী, অগ্রিম করের পরিমাণ নির্ধারণের জন্য বার্ষিক আয়, বিনিয়োগের অনুমানভিত্তিক পরিমাণ হিসাব করতে হবে। 
 
বিনিয়োগে কর রেয়াত বাদ দিয়ে যে পরিমাণ আয় অবশিষ্ট থাকবে, সেটাকে ধরে প্রদেয় কর হিসাব করতে হবে। এ অনুমিত করের পরিমাণকে ১২ দিয়ে ভাগ করে প্রতি মাসে তা বেতন থেকে কেটে রাখা হবে। সেই কর অগ্রিম কর হিসেবে সরকারি কোষাগারে জমা দিতে হবে। অগ্রিম করের অর্থ কেটে রেখে কর্মীদের বেতন-ভাতা দিতে হবে নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠানকে।
 
যদি কোনো সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মীর মূল বেতন ১৬ হাজার টাকা বা তার বেশি হয় তাহলে বার্ষিক আয়কর বিবরণী জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক। নতুন বেতনকাঠামো অনুযায়ী, দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মকর্তাদেরও আয়কর বিবরণী জমা দিতে হবে। এ ছাড়া বেতনকাঠামোর দশম বা সমতুল্য গ্রেড বা এর বেশি গ্রেডের বেতনধারীদের ই-টিআইএন নেওয়া বাধ্যতামূলক। এমনকি সরকারি উৎসের এমপিওভুক্তির আওতায় কোনো চাকরিজীবীর মূল বেতন যদি ১৬ হাজার টাকা বা তার বেশি হলে ই-টিআইএন থাকতে হবে। 
 
এবিএন/সোম-১ম/আর্থনীতি/ডেস্ক/জনি/মুস্তাফিজ/জেডি

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত