logo
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৬
 
ekattor
  • হোম
  • সারাদেশ
  • নাসিরনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নার্সের কাচির আঘাতে নবজাতকের মৃত্যু
নাসিরনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নার্সের কাচির আঘাতে নবজাতকের মৃত্যু
নাসিরনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নার্সের কাচির আঘাতে নবজাতকের মৃত্যু
নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), ০৭ আগস্ট, এবিনিউজ : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার একমাত্র সরকারি হাসপাতালে নার্সের অবহেলা, অব্যবস্থাপনা ও কাচির আঘাত জনিত কারণে এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। আজ রবিবার সকাল ১১টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নবজাতকের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে প্রসুতির আত্মীয় স্বজন হাসপাতালে উত্তেজনা সৃষ্টির চেষ্টা করে। জানা গেছে, গোকর্ণ ইউনিয়নের নূরপুর গ্রামের জয়নাল মিয়ার গর্ভবতী স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (২৫) এর প্রসব ব্যথা শুরু হয়। মনোয়ারাকে সকালে নাসিরনগর হাসপাতালে এনে ডাক্তার মকবুল হোসেনকে (মকুল) দিয়ে চিকিৎসা করানো হয়। প্রসুতির চিকিৎসার পর গর্ভাবস্থায় জানতে আলট্রাসনো করা হয়। গর্ভাবস্থা সঠিক ও বাচ্চা সুস্থ আছে বলে আল্ট্রাসনো রিপোর্টে বলা হয়। সকাল ১১টার সময় ওই হাসপাতালে নয়ন মনি নামের একজন নার্স ওই প্রসূতিকে পাশের একটি পরিত্যক্ত রুমে নিয়ে বাচ্চা প্রসবের চেষ্টা করে। 
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বাচ্চা প্রসবের সময় অদক্ষ নার্স নয়ন মনি কেচি দিয়ে গর্ভবর্তীর গোপনাঙ্গ কাটার সময় ওই কেচির আঘাতে নবজাতকের মাথার প্রায় এক ইঞ্চি পরিমাণ জায়গা কেটে যায়। নবজাতকের আত্মীয় স্বজনের অভিযোগ, কেচির আঘাতে শিশুটির মৃত্যু হয়। এ ব্যাপারে নার্স নয়ন মনির সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, বাচ্চা প্রসবের আগেই পেটের ভিতর মারা যায়। এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সুখলাল সরকারের সাথে দেখা করতে তার চেম্বারে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় তিনি আজ হাসপাতালে আসেননি। তারা জানান, স্যার জরুরী কাজে হাসপাতালের বাহিরে আছেন। হাসপাতালে কর্তব্যরত আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডাক্তার রনি রায়ের সাথে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি হাসপাতালে কোনরূপ ঝগড়া সৃষ্টি না করে টিএইচ ও অথবা থানা বরাবর লিখিত অভিযোগ করার পরামর্শ দেন। ডাক্তার মকবুলের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি মিটিংয়ে আছেন বলে ফোন কেটে দেন। প্রসূতি ও নবজাতকের ছবি সংযুক্ত।
 
এবিএন/রবি-২য়/সারাদেশ/ডেস্ক/আব্দুল হান্নান/মুস্তাফিজ/ইতি
Like us on Facebook

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত