logo
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৬
 
 
  • হোম
  • সারাদেশ
  • দাউদকান্দিতে মহাসড়ক অবরোধ ও পুলিশ অবরোদ্ধ : আটক ১
দাউদকান্দিতে মহাসড়ক অবরোধ ও পুলিশ অবরোদ্ধ : আটক ১
দাউদকান্দিতে মহাসড়ক অবরোধ ও পুলিশ অবরোদ্ধ : আটক ১

দাউদকান্দি (কুমিল্লা), ০৩ আগস্ট, এবিনিউজ : কুমিল্লার দাউদকান্দিতে  ভ্যান চালককে পিটুনির কারণে মাহসড়ক অবরোধসহ পুলিশকে অবরোদ্ধ করেছে চালক-মালিক শ্রমিকরা। আজ বুধবার সন্ধ্যায়  ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার গৌরীপুর বাসষ্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে পুলিশ ও চালক মালিকদের মধ্যে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। এ ঘটনায় মাইনুদ্দিন নামে একজনকে আটক করা হয়। সে দাউদকান্দি উপজেলার মালিগাও গ্রামের তমিজ উদ্দিনের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মহাসড়কের দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ডের নিকট মালবোঝাই একটি ভ্যান রাস্তা পাড়াপারের সময় দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশের সার্জেন্ট মামুন চালক বিল্লাল হোসেনকে লাঠি দিয়ে পিটুনি দেয়। এক পর্যায়ে চালক সার্জেন্ট মামুনের পায়ে ধরে মাফ চায়। সে চালককে ক্ষমা না করে উল্টো ভ্যানের টায়ার কেটে দেয়। বাসষ্ট্যান্ডে উপস্থিত সকল চালক-মালিক ও জনগণ বিয়ষটি প্রত্যেক্ষ করে । পরে উত্তেজিত জনগণ পুলিশকে ধাওয়া দেয় এবং গাড়িটিকে মাঝপথে রেখে মহাসড়ক অবরোধ করে। এসময় বাসষ্ট্যান্ডে দ্বায়িত্বরত সার্জেন্ট মামুন ও এএসআই সুমনসহ কয়েজন পুলিশ গিয়ে অবরোধ তুলে নেওয়ার জন্য এগিয়ে গেলে চালক-মালিক এবং যাত্রীরা পুলিশকে ধাওয়া দেয়।  পুলিশ দৌড়ে গিয়ে একটি দোকানে আশ্রয় নেয়। তখন উত্তেজিত জনতা পুলিশকে অবরোদ্ধ করে রাখে। পরে হাইওয়ে পুলিশের ওসি আবদুল আউয়াল এসে ঘটনাস্থল থেকে তাদেরকে উদ্ধার করে।
ভ্যান চালক বিল্লাল হোসেন বলেন, মাল নিয়ে মহাসড়কের উত্তর পাশ থেকে দক্ষিন পাশে ছোট রাস্তায় ওঠার সময় পুলিশ আমাকে বেধরক পিটুনি দেয়। আমি ওনার পা ধরে মাফ চাইলে সে আমার ভ্যানের টায়ার কেটে দেয়। আমরা পেটে খাওয়া মানুষ একদিন ভ্যান চালাতে না পাড়লে আমাদের ঘরে চুলা জ্বলে না। আমার ভ্যানের দুটি টায়ার কেটে দেওয়ায় এক সপ্তাহে এর টাকা জোগাড় করতে পারবো না।
সার্জেন্ট মামুন বলেন, আমরা আছি বিপদে ম›ন্ত্রীর নির্দেশ পালন করতে গিয়ে তাদেও সাথে দূর্বব্যহার করতে হয়। মন্ত্রী গাড়ির যাওয়ার সময় তাদেরকে রাস্তা পাড়াপারের জন্য নিষেধ করার পরও সে রাস্তা পাড় হয়ে চলে আসে। এ জন্য তার গাড়ির টায়ার কেটে দেই।দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশের ওসি আবদুল আউয়াল বলেন, ভ্যান চালক-মালিকদের সাথে একটু ভুল বোঝাবুঝির কারণে অনাকাংখিত ঘটনার খবর শুনে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসি।     


এবিএন/বুধ-২য়/সারাদেশ/জাকির হোসেন হাজারী/মুস্তাফিজ/রাজ্জাক

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত